» শিক্ষা সফরে ৯ জন শিশু-শিক্ষার্থীর অকাল মৃত্যু’তে বেনাপোলে শোকাবহ দিবস পালন

প্রকাশিত: ১৫. ফেব্রুয়ারি. ২০২০ | শনিবার

খোরশেদ আলম : বেনাপোল ২০১৪ সালের ১৫ই ফেব্রুয়ারী`র এই দিনে ৯ জন শিশু-শিক্ষার্থীর অকাল মৃত্যু`র ঘটনায় শোকাবহ এর এলাকাজুড়ে বেনাপোলবাসী শোকের মাতম পালন করেন, এ উপলক্ষ্যে সকালে একটি শোক র্যালী বের করা হয়। র্যালীতে অংশ নেয় বেনাপোল পোর্টথানাধীন বিভিন্ন স্কুল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীবৃন্দ, নিহত শিশুদের পিতা-মাতা, ও অভিভাবকবৃন্দ, রাজনৈতিক দলের নেতা-নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন সহ অত্র এলাকার বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ।

উক্ত শোকাবহ র্যালীতে নেতৃত্ব দেন – ৮৫, যশোর -১ শার্শা আসনের এমপি আলহাজ্ব শেখ আফিল উদ্দিন। প্রায় ১ মাইল ব্যাপী দীর্ঘ র্যালীটি, বেনাপোল মরিয়ম মেমোরিয়াল বালিকা বিদ্যালয় সংলগ্ন ঐ প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গন থেকে শুরু করে বেনাপোল বাজার প্রদীক্ষণ শেষে পুনরায় স্কুল প্রাঙ্গনে এসে শেষ হয়। র্যালী শেষে প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে আয়োজিত দো`আ ও আলোচনা সভায় অংশ নেন নেতৃবৃন্দ – নেতাকর্মীরা। এতে প্রধাননেতৃত্ব করেন – এমপি আফিল উদ্দিন। বিশেষ অতিথিগন হলেন-বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল হক মঞ্জু, চেয়ারম্যান শার্শা উপজেলা, মো: নুরুজ্জামান, সাধারন সম্পাদক, শার্শা উপজেলা আ`লীগ, শেখ আব্দুর রব, উপজেলা শিক্ষা অফিসার, আলহাজ্ব মো: এনামুল হক মুকুল, ভারপ্রাপ্ত সভাপতি, বেনাপোল পৌর আ`লীগ, মো: নাসির উদ্দিন, সাধারন সম্পাদক, পৌর আ`লীগ, মো: মোস্তাকব হোসেন স্বপন, সভাপতি, ম্যানেজিং কমিটি, বেনাপোল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শার্শা যশোর।

উল্লেখ্য, গত ২০১৪ সালের ১৫ই ফেব্রুয়ারী মেহেরপুর জেলার জীবন নগর আম্রকাননে শিক্ষা সফর কর্মসুচিতে অংশ নেয়। বেনাপোল উক্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক সহ- শিক্ষার্থীবৃন্দ। শিক্ষা সফরসুচী শেষে ঐ দিন বাড়ী ফেরার পথে, যশোর জেলার চৌগাছা এবং ঝিনাইদাহ জেলার মহেশপুর সড়কে চৌগাছার ঝাউতলা বাজারে স্কুল বাসটি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে পার্শ্ববর্তী পুকুরে পড়ে যায়। ঘটনাস্থলে ৭ জন শিশু মারা যায় এবং আহত হয় প্রায় ৭০ জনের মত। চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও ২ জন শিশুর মৃত্যু হয়। দূর্ঘটনায় নিহত শিশুরা হলো – (ক) মাছুরা আক্তার জেবা (৮)৩য় শ্রেণী, সুরাইয়া আফরিন(১০) ৫মশ্রেণী, সর্ব পিতা:-সৈয়দ আলী,ছোট আঁচড়া বেনাপোল। (খ)সাব্বির আহম্মদ(৫) ৪র্থশ্রেণী, পিতা:-সেকেন্দার আলী,গ্রাম:-গাজীপুর,বেনাপোল। (গ)রুনা খাতুন(৯)৪র্থ শ্রেণী, পিতা:-কালু মিয়া,গ্রাম:-ছোট আঁচড়া,বেনাপোল। (ঘ)মিথিলা খাতুন(১০)৫ম শ্রেণী, পিতা:-ইউনুস আলী,গ্রাম:-ছোট আঁচড়া,বেনাপোল।(ঙ)আখি খাতুন(১১)৫ম শ্রেণী, পিতা:-হাসান আলী,গ্রাম:-নামাজগ্রাম, বেনাপোল।(চ)আশরাফুজ্জামান শান্ত(১০) ৫মশ্রেণী,পিতা:-লোকমান হোসেন,গ্রাম:-ছোটআঁচড়া, বেনাপোল। (ছ)ইকরামুল কবীর(৯)৪র্থশ্রেণী, পিতা:-মনির হোসেন,গ্রাম:-ছোট আঁচড়া,বেনাপোল। (জ) ইয়ানুর রহমান(৯)৪র্থ শ্রেণী, পিতা:-ইমাদ আলী,গ্রাম:-ছোট আঁচড়া, বেনাপোল।

উক্ত শোকাবহ এ স্মৃতিস্তম্ভে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন এবং র‍্যালী শেষে নিহত ছাত্র-ছাত্রীদের আত্নার মাগফেরাত কামনা করে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখার মুহূর্তে ৮৫, যশোর – ১ শার্শা আসনের সংসদ সদস্য এমপি শেখ আফিল উদ্দিন, সংক্ষিপ্ত আলোচনায় বলেন আমরা তোমাদের ভুলি নাই, এই যন্ত্রনা ভুলবার নই । মহানপাক রাব্বুল আলামিন নিহত কোমলমতি শিশদেরকে জান্নাত নসিব করুন,আমিন। আলোচনা শেষে নিহত শিক্ষার্থীদের মাগফেরাত কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।