» ৯৯৯ ফোনঃ টংগিবাড়ী থানার ওসির মানবিকতায় খাদ্য সামগ্রী পেলো প্রবাসীর পরিবার

প্রকাশিত: ০১. মে. ২০২০ | শুক্রবার

 

শেখ রাসেল ফখরুদ্দীন, টংগিবাড়ী(মুন্সীগঞ্জ) :

বাড়িতে পাকা সুন্দর ভবন। বিত্তশালী পরিবারটির প্রধান কর্তা থাকেন সৌদি আরবে। সেখানে ২ মাস লকডাউনে থাকায় বাড়িতে টাকা পাঠাতে পারেননি তিনি। এদিকে সঞ্চিত টাকা শেষ হয়ে যাওয়ায় টংগিবাড়ী উপজেলার আড়িয়লে থাকা ঐ প্রবাসীর ২ শিশুসহ ৬ সদস্যের পরিবারটি পরে চরম বিপাকে।

বাধ্য হয়ে ওই পরিবারটি পুলিশের জরুরী জনগুরুত্বপূর্ণ সেবা ৯৯৯ শুক্রবার পৌনে ২ টার দিকে ফোন দিলে ফোনটি ধরিয়ে দেওয়া হয় মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী থানা ওসি শাহ মোঃ আওলাদ হোসেনকে।

এ সময় ৯৯৯এ ফোন দাতা জানায়, মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার আড়িয়ল ইউনিয়নের নাগেরপার গ্রামে তাদের বাড়ি। ভুক্তভোগী পরিবারটির প্রধান সৌদি আরব থাকেন। তার পরিবারে ২ বছর এবং ৯ মাসের দুইটি শিশু বাচ্চাসহ ৬ জনের পরিবারের সবাই অনাহারে আছেন। তারা সহায়তা চান।

ফোন পেয়ে টঙ্গীবাড়ী থানা ওসি শাহ মো. আওলাদ হোসেন পিপিএম শিশু খাদ্যসহ পরিবারের চাহিদা অনযায়ী ১২ রকমের নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য নিয়ে

শুক্রবার বিকার ৪টায় ওই প্রবাসির বাসায় পৌছে দিয়ে দেন।

এ ব্যাপারে ওসি শাহ মো. আওলাদ হোসেন জানান, সৌদি আরব প্রবাসী বিগত ২ মাসের বেশি সময় লগডাউনে থাকায় বাড়িতে কোন টাকা পাঠাতে পারেনি। জমানো টাকা শেষ হয়ে তারা অসহায় হয়ে পড়ায় পরিবারের পক্ষ থেকে জরুরী সেবা ৯৯৯ ফোন দেওয়া হয়। ফোন আমাকে ধরিয়ে দেওয়ার পর আমি খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিয়ে আসছি। ওই পরিবারটি আমায় জানায় তারা চিন্তাই করেনি যে ফোন দেওয়ার সাথে সাথেই এভাবে তাদের শিশুদের খাবারসহ সকল খাবার পাবেন। পরিবারটি পুলিশের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তাদের পরিবারের নাম প্রকাশ না করতে অনুরোধ জানান।