এই মাত্র পাওয়া:

» সাপাহারে দুই কিশোরকে অপহরণ করে মুক্তিপন দাবী আটক-৫

প্রকাশিত: ০৬. অক্টোবর. ২০২২ | বৃহস্পতিবার

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ নওগাঁর সাপাহার হতে দুই কিশোরকে অপহরণ করে আটকে রেখে মুক্তিপন দাবীর ঘটনায় জড়িত ৫ জন অপহরণকারীকে আটক সহ অপহৃত দুই কিশোরকে রাতেই নজিপুর থেকে উদ্ধার করেছে সাপাহার থানা পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, বুধবার ৫ অক্টোবর বিকাল অনুমান সোয়া ৫ টার দিকে সাপাহার উপজেলা সদরের ওয়ালটন মোড় সংলগ্ন আদি ইসলামিয়া হোটেলের সামনের পাকা রাস্তার উপর হতে উপজেলার বৈকন্ঠপুর গ্রামের রমজান আলীর ছেলে মারুফ হোসেন (১৫) ও তার বন্ধু কলমুডাঙ্গা গ্রামের জাইবুর রহমানের ছেলে মোঃ মেহেদী হাসান (১৬) কে অজ্ঞাতনামা ৭/৮ জন অপহরণকারী একটি সাদা মাইক্রো যোগে তাদের চোখ বেঁধে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে অপহৃত মারুফের পিতার কাছে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে ১লক্ষ টাকা মুক্তিপন দাবি করে অপহরণকারীরা। ছেলের জীবনের কথা চিন্তা করে দুইটি মোবাইল নম্বারে ৫ হাজার করে ১০ হাজার বিকাশ করে পিতা রমজান আলী। এবিষয়ে সাপাহার থানায় লিখিত অভিযোগ করেন মারুফের পিতা রমজান আলী। অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ সুপার মুহাম্মদ রাশিদুল হক ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোঃ গাজিউর রহমান পিপিএম দের দিক নির্দেশনায় সাপাহার থানার পুলিশের এস আই মানিক হোসেন ও আব্দুল আজিজ এর নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম অভিযান পরিচালনা করে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় বৃহস্পতিবার রাত দেড়টার দিকে নজিপুর সরদারপাড়া মোড়ের একটি ভাড়া বাসা হতে দুই কিশোর কে উদ্ধার সহ ৫ অপহরণকারী কে আটক করে পুলিশ।

আটককৃতরা হলো পত্নীতলা উপজেলার হরিরামপুর কলেজ পাড়ার নওশাদ আলীর ছেলে মামুনুর রশিদ মামুন (৩০), নজিপুর পলি পাড়ার মেসবাউল হকের ছেলে আব্দুস সোবাহান খোকন (২৪), নজিপুর মাদ্রাসা পাড়ার আব্দুল কাদেরের ছেলে মাহমুদ হাসান সোহাগ (২৭), নওগাঁ সদর উপজেলার বক্তারপুরের মোরশেদ আলমের ছেলে নাহিদ হোসেন (২০), দিঘা গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে মোহাম্মদ তরিকুল ইসলাম (২৯)। সাপাহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হাবিবুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে নওগাঁ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।