এই মাত্র পাওয়া:

» শিবলী সাদিক এমপিকে দিনাজপুর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে দেখতে চায় তৃণমূল নেতাকর্মীরা

প্রকাশিত: ১৫. ফেব্রুয়ারি. ২০২০ | শনিবার

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

অলিউর রহমান মেরাজ নবাবগঞ্জ দিনাজপুর প্রতিনিধি:
স্বাধীন বাংলার মানচিত্রের ভূখণ্ডে জন্ম নেওয়া উত্তরবঙ্গ, সেই উত্তরবঙ্গের অবহেলিত বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ আসন দিনাজপুর ৬ আসনের নবাবগঞ্জ উপজেলায় জন্ম নিয়েছে উত্তর জনপদের সোনালী অর্জন মরহুম মোস্তাফিজুর রহমান ফিজু এর সুযোগ‍্য সন্তান সাবেক ছাত্রনেতা নবাবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দিনাজপুর ৬ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ শিবলী সাদিক এমপি
১৯৮২ সালের ২৮শে আগস্ট নবাবগঞ্জ উপজেলার ৯নং কুশদহ ইউনিয়নের ইসলাম পুর মৌজার আফতাবগঞ্জ বাজারের সম্ভ্রান্ত মুসলিম আফতাব পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।তিনি আফতাবগঞ্জ চান্দের হাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় লেখাপড়া শুরু করেন। এরপর আফতাবগঞ্জ বি ইউ উচ্চ বিদ্যালয় ১৯৯৮ সালে এসএসসি,ও ২০০০ সালে আফতাগঞ্জ ডিগ্ৰী কলেজ হতে এইচ এস সি পাস করে, ঢাকা আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজে ভর্তি হয় । বিএনপি জোট সরকারের ক্লিনহার্ট অপারেশনের সময় এমপির ছেলে হওয়ায় তার নামে ১৮ টি মামলা হওয়ায় থেমে যায় তাঁর পড়াশোনা। পরে ২০১০ সালে বি.এস.এস পাস করেন।১৯৯৬ সালে তার প্রয়াত পিতা মোস্তাফিজুর রহমান এমপি ছিলেন। পিতার অকাল মৃত্যুতে রাজনীতিতে নিজেকে আত্নপ্রকাশ করে ২০০৩ সালে নবাবগঞ্জ উপজেলা শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হন। এরপর ২০০৯ সালের ২২ জানুয়ারি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে উপজেলা চেয়ারম্যান, ২০১২ সালের ১৪ ই ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিলে বিপুল ভোটে জয়ী হয়ে নবাবগঞ্জ উপজেলা শাখা আওয়ামী লীগের সভাপতি হয়ে উত্তরবঙ্গে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সকল প্রোগ্রামে সক্রিয়ভাবে কর্মী নিয়ে উপস্থিত থেকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার নজর আসেন এবং ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মমতাময়ী নেত্রী নিজেই নৌকার টিকিট তার হাতে তুলে দেন ও এমপি নির্বাচিত হয়ে নিজ নির্বাচনী এলাকায় কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে তৃণমূল আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করে তৃনমুল আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের ব্যাপক জনপ্রিয়তা ও সুনাম অর্জন করে।তিনি শুধু থেমে থাকেননি নিজ নির্বাচনী এলাকা নিয়ে সাথে ভেবেছেন গোটা উত্তরবঙ্গ কে নিয়ে তার সেই ভাবনা থেকেই মহান জাতীয় সংসদে বজ্রকন্ঠে দাবি তুলেছিলেন উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন অবহেলিত এলাকা নিয়ে এবং উত্তর জনপদের জনগণের কথা চিন্তা করে তিনি মহান জাতীয় সংসদে উত্থাপন করেছিলেন বিভিন্ন সময় আমরা শুনি যমুনা সেতু ফাটল ধরেছে তাই ২য় যমুনা সেতু নির্মাণের এবং সৈয়দপুর এয়ারপোর্ট কে আন্তর্জাতিক এয়ারপোর্ট হিসেবে করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি জানান এবং দিনাজপুর থেকে গোবিন্দগঞ্জ পর্যন্ত রাস্তাটি সম্প্রসারণ করার দাবি তুলেন, ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকী ৩রা নভেম্বর জাতীয় জেলহত্যা দিবস সহ প্রতিটি জাতীয় প্রগ্ৰাম উত্তরবঙ্গের সবচাইতে বড় প্রগ্ৰাম হিসেবে বারবার প্রমাণিত করেছেন
সাংগঠনকে শক্তিশালী করে তৃনমূল নেতাকর্মী দের মূল্যয়নের ইতািহাস রচনা করেছেন । মমতাময়ী নেত্রী আস্থা অর্জন করে নেত্রীর মনে জায়গা করে নিয়েছেন এবং তারে ধাবাহিকতায় প্রিয় নেত্রী ২০১৮ সালে আবারও দিনাজপুর ৬ আসনের নৌকার মাঝি হিসেবে নির্বাচিত করে তার হাতে নৌকার টিকিট তুলে দেন এবং সংসদ নির্বাচনে শিবলী সাদিক এমপির যোগ্য নেতৃত্বের নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত হয়।দিনাজপুর বাসি মনে প্রাণে বিশ্বাস করে এমপি শিবলী সাদিক কে জননেত্রী শেখ হাসিনা নিজেই তৈরি করেছেন দিনাজপুর জেলা আওয়ামীলীগ কে শক্তিশালী সংগঠন হিসেবে শেখ হাসিনাকে উপহার দেওয়ার জন্য দিনাজপুর জেলা আওয়ামীলীগের তৃণমূল নেতাকর্মীদের ভরসার নাম হবে শিবলী সাদিক এমপি।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৬৭৪ বার

[hupso]
Facebook Pagelike Widget