» মালয়েশিয়ার জঙ্গলে বসবাসের দায়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়লেন ৫ বাংলাদেশীসহ মোট ২৭ জন

প্রকাশিত: ২৩. জানুয়ারি. ২০২০ | বৃহস্পতিবার

জহিরুল ইসলাম, মালয়েশিয়া: মালয়েশিয়ার জঙ্গলে বসবাসের দায়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়লেন ৫ বাংলাদেশি। মালয়েশিয়ার কুয়ালা নেরাসে অভিযান চালিয়ে পুলিশ তাদের আটক করে বলে দেশটির ইমিগ্রেশন সূত্রে জানা গেছে।

গতকাল বুধবার  স্থানীয় সময়  রাত ১১ টায় মালয়েশিয়ার তেরেংগানু ইমিগ্রেশন পুলিশের অভিযানের সময় পালাতে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়েন তারা।

কুয়াল নেরাস, মারাং, কুয়ালা তেরেংগানু ও হুলু তেরেংগানুতে নির্মাণকেন্দ্র, রেস্তোঁরা, বাসা, বাড়ি সহ অরোও ১৫ টি স্থানে অভিযান চালিয়ে বাংলাদেশ, ইন্দোনেশিয়া এবং থাইল্যান্ডের ২৫ জন পুরুষ এবং দু’জন মহিলা সহ মোট ২৭ জন বিদেশিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সূত্রে জানা যায়, চলমান অবৈধ অভিবাসীদের গ্রেফতার এড়াতে ওই পাঁচ বাংলাদেশি তেরেংগানুর জালান মেরং, কামপুং মেঙ্গাবাং এর জঙ্গলে প্লাষ্টিক ছাউনি তৈরি করে বসবাস করছিলেন।

তেরেংগানু ইমিগ্রেশন বিভাগের উপপরিচালক মালিক জালিমন ডেরামান বলেন, অভিযানের সময় পুলিশ প্রধান মোহাম্মদ মুদার নেতৃত্বে অভিযানের সময় পুরো এলাকাটি ঘিরে ফেলে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। এ সময় পালাতে গিয়ে আটক করা হয় তাদের। অটককৃতরা ৩০ থেকে ৩১ বছর বয়সী। ১৯ সদস্যদের দ্বারা পরিচালিত তদন্ত অনুসারে, পাঁচ বাংলাদেশির বৈধ কোন অনুমতি না থাকায় ইমিগ্রেশন আইনের ৬ (১) (গ) এর আওতায় এদের গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

 

এছাড়াও সামাজিক ভিজিট পাসের অনুমতি প্রাপ্তির চেয়ে বেশি দিন অবস্থান করে আসছিল এবং বৈধতার কোন দলিল না থাকায় আরোও ১১৯জন বিদেশিকে আটক করে ইমিগ্রেশন ডিপো, আজিল, হুলু তেরেংগানুতে ইমিগ্রেশন রেগুলেশন ১৯ ১৯৩ এর বিধি ৩৯ (বি), তদন্তের ১৫ (১) (গ) এবং সেকশন ((১) (সি) এর তদন্ত শেষে ইমিগ্রেশন ১৯৫৯/১৯৬৩ আইনে তদন্ত করা হচ্ছে বলে তেরেংগানু ইমিগ্রেশন বিভাগের উপপরিচালক মালিক জালিমন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।