এই মাত্র পাওয়া:

» পার্টনারকে ৩৫ টুকরো করে শহরে ছিটালেন যুবক

প্রকাশিত: ১৪. নভেম্বর. ২০২২ | সোমবার

জাতির সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম।। লিভ ইন পার্টনার ছিলেন। কিন্তু রাতে তুমুল জগড়া বেধে যায়। এই ক্ষোভে পার্টনারকে কেটে ৩৫ টুকরো করেছেন। এরপর টুকরো টুকরো বিভিন্ন অঙ্গ শহরজুড়ে ফেলে দিয়েছেন। এই ঘটনা ভারতের।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দিল্লি পুলিশ ইতোমধ্যে অভিযুক্ত যুবককে গত শনিবার গ্রেপ্তার করেছে। পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, গত ১৮ মে ঝগড়া হওয়ার পর আফতাব আমীন পুনাওয়ালা তার লিভ-ইন পার্টনার শ্রদ্ধাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এরপর তার দেহ করাত দিয়ে কেটে ৩৫ টুকরো করেন। ফ্রিজ এনে তাতে ভরিয়ে রাখেন। পরবর্তীতে ১৮ দিন ধরে তিনি রাত দুইটার পর দিল্লির বিভিন্ন স্থানে ফেলে দিতেন।

জানা যায়, মুম্বাইয়ের এক মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিতে কল সেন্টারে কাজ করেতেন ২৬ বছর বয়সী শ্রদ্ধা। সেখানেই তার পুনাওয়ালার সঙ্গে দেখা হয়। পরবর্তীতের তাদের মধ্যে প্রণয় হয়। তাদের সম্পর্ক পরিবারের লোকজন মেনে না নেওয়ায় তারা পালিয়ে দিল্লেতে চলে আসেন। দিল্লির মেহরুলিতে একটি ফ্ল্যাটে একসঙ্গে বসবাস শুরু করেন।

সেখানে আসার পর শ্রদ্ধা তার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। গত ৮ নভেম্বর শ্রদ্ধার বাবা ভিকাস মদন তার মেয়ের খোঁজ নিতে দিল্লিতে আসেন। কিন্তু ওই ফ্ল্যাটে আসার পর তিনি তা বন্ধ পান। এরপর তিনি মেহরুলি থানায় অপহরণের অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগের ভিত্তিকে পুলিশ গত শনিবার আফতাবকে গ্রেপ্তার করে। আফতাব স্বীকার করেছে, খুনটা সে করেছে। শ্রদ্ধা তাকে বিয়ে করতে চাইছিল, আর সে রাজি ছিল না। এই নিয়ে অশান্তি চলছিল। তাই রাগের মাথায় খুন করেছে।