» ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচি স্থায়ী করণের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন

প্রকাশিত: ১৪. জানুয়ারি. ২০২০ | মঙ্গলবার

নুরুল ইসলাম।।    আজ সোমবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ ন্যাশনাল সার্ভিস একতা কল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচি স্থায়ী করণের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালিত হয়। পরিষদের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ তাদের বক্তব্যে জানান, আওয়ামী লীগ সরকার তাদের নির্বাচনী ইশতেহার অনুযায়ী ২০০৯-২০১০ অর্থ বছরে ন্যাশনাল সার্ভিস নামে একটি প্রকল্প চালু করে। এ প্রকল্পের আওতায় ৩৭ জেলায় ১২৮টি উপজেলার সর্বমোট ১,৯৮,৯৮৫ জন যুব ও যুব মহিলাকে ২ বছর অস্থায়ী ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়া হয়। যা ১ম থেকে ৫ম পর্ব মেয়াদ শেষ, ৬ষ্ঠ ও ৭ম পর্ব চলমান আছে। কিন্তু প্রশিক্ষণকালীন ও পরবর্তীতে কর্মে সংযুক্তকালীন সময়ে যে পরিমাণ কর্মভাতা দেওয়া হয় তা নিতান্তই অপ্রতুল্য। আবার ২ বছর পর মেয়াদও শেষ হয়ে যায়। তারা বলেন, ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মীরা শিক্ষিত ও প্রশিক্ষিত এবং তারা শূন্যপদে কর্মরত ছিল। তাই তাদের বাদ দিয়ে নতুন নিয়োগ কেন হবে? কর্মসংস্থান চাওয়ার সাংবিধানিক অধিকারের ভিত্তিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে তারা বিভিন্ন দাবি জানান। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ন্যাশনাল সার্ভিস প্রকল্প স্থায়ীকরণ, বর্তমান বিবেচনায় বেতন-ভাতা বৃদ্ধি করণ, ন্যাশনাল সার্ভিস কমিশন/অধিদপ্তর গঠন, নতুন নিয়োগ বন্ধ রেখে ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মীদের শূন্যপদে নিয়োগদান এবং ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মীদের জাতীয়করণ। অবস্থান কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল সার্ভিস একতা কল্যাণ পরিষদ এর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আতিক হাসান রাজা, সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন পলাশসহ পরিষদের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।