» নিজের জীবনের ঝুকি নিয়ে মধ্যবিত্তদের দুয়ারে দুয়ারে খাদ্যসামগ্রী পৌছে দিচ্ছেন মানবতার ফেরিওয়ালা অনিক আফ্রিদি

প্রকাশিত: ০৬. এপ্রিল. ২০২০ | সোমবার

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

জাতির সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম   

বিশ্বব্যাপী এই মহামারী বিপর্যয়ে বাংলাদেশেও এর প্রভাব বিত্তশালীদের পাশাপাশি সমাজের বিভিন্ন শ্রেনীপেশার মানুষ এগিয়ে এসেছে যার সাধ্যমত তেমনিই পুরান ঢাকার এক তরুণ অনিক আফ্রিদি সে ও পিছুপা হননি যখন মানুষ সাহা্য্য দিয়ে ছবি তোলা নিয়ে ব্যস্ত ঠিক তখনি মানবতার ফেরী ওয়ালা অনিক আফ্রিদি মানুষের পাশে দাঁড়াতে চলমান করোনা প্রভাবে লকডাউন চলাকালীন সময়ে সমাজের মধ্যবিত্তদের পাশে থাকার প্রত্যয় নিয়েই এই মহতি উদ্যাগের কথা জানান। সাহায্যর দেওয়ার পর তাদের কোনো ছবি বা ভিডিও না দেওয়ার কথা বলে তার ফেইসবুকে জানায়। আজ তরুণ অনিক আফ্রিদি ৫ ই এপ্রিল রোজ রবিবার বিকাল ও রাতে পুরান ঢাকার তরুণ অনিক আফ্রিদি নিজ উদ্যােগে প্রায় একশত মধ্যবিত্ত পরিবার কে পুরান ঢাকা সহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার মধ্যবিত্ত পরিবাররের তালিকা করে তাদের বাসায় দুয়ারে গিয়ে খাদ্য সামগ্রী পৌছিয়ে দিচ্ছেন। এই তরুন তার ফেইসবুকে ধনীদের অনুরোধ করেন। দেশে লকডাউন চলা কালে দেশের অনেক মধ্যবিত্ত পরিবার মুখফুটে কারো কাছ থেকে কিছু চাইতে পারছেনা।তারা মুখ বুঝে বাসায় মানবতার জীবনযাপন করছে। অনিক আফ্রিদি ফেইসবুক লাইভে এসে বলেছেন আরও কিছু মধ্যবিত্তদের তার পক্ষ থেকে যত টুকু সম্ভব দিবেন। কিন্তু তার একার পক্ষে ১ হাজার ২ হাজার পরিবারকে সাহায্য করা সম্ভব নয় এছাড়া সকল কে অনুরোধ জানান মধ্যবিত্তদের সাহায্যে এগিয়ে আসতে।সে তার সামর্থ্য অনুযায়ী সে একা গাড়ীতে ঘুরে ঘুরে মধ্যবিত্তদের দুয়ারে দুয়ারে পৌছিয়ে দিয়েছেন।এমন অবস্থায় অনিক আফ্রিদির ফেইসবুক ম্যাসেঞ্জারে পুরান ঢাকার কয়েকটি এলাকা সহ বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, বনশ্রী আবাসিক এলাকা থেকে প্রায় এক শতাধিক মধ্যবিত্ত মানুষ নাম, ঠিকানা মোবাইল নাম্বার লেখে ম্যাসেজ পাঠাতে থাকে, পরে এক শতাধিক মধ্যবিত্তদের তালিকা করে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে বের হয়ে। তাদের মোবাইল ফোনে কল দিয়ে ঠিকানা অনুযায়ী তাদের বাসার সামনে গিয়ে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র খাদ্যসামগ্রী পৌছিয়ে অনিক বলেন।মিরপুর কেরানীগঞ্জ সহ আরো কয়েকটা এলাকা লকডাউনের জন্য সে যেতে পারেনি। করোনা মহামারীতে হোম কোয়ান্টানে রয়েছে এছাড়া সারা পৃথিবী প্রায় ১৮৫ দেশে এ মহামারী করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে।প্রতিদিন ইউরোপ আমেরিকা সহ বিভিন্ন দেশে হাজার হাজার মানুষ মারা যাচ্ছে। বাংলাদেশ ও এর বাহিরে নেই প্রতিদিনেই আক্রান্ত সংখ্যা বেড়েই চলছে। মধ্যবিত্ত পরিবার গুলো অসহায় জীবন যাপন করছে।অনিক বলেন তাই আমি নিজে থেকে মধ্যবিত্তদের বাসায় বাসায় খাদ্য সামগ্রী পৌছিয়ে দেওয়ার উদ্যাগ নিয়েছি।ইচ্ছা রয়েছে আগামী রমজানে ও মধ্যবিত্তদের কিছু করার চিন্তা রয়েছে।অনিক আরও বলেন।সমাজের বিত্তবানদের দেশের ক্রান্তিকালে গরীব দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়াতে আহবান জানান।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১০৪০ বার

[hupso]
Facebook Pagelike Widget