» নাইম-মাঈন স্মরণনামা আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ৯ দফা ঘোষণা

প্রকাশিত: ০১. ডিসেম্বর. ২০২১ | বুধবার

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

জাতির সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম।। 

নডরডেম কলেজের নাইম এবং একরামুন্নেসা বয়েস হাই স্কুলের মাঈন-এর সড়কে হত্যার বিচার, সারাদেশে গণপরিবহনে শিক্ষর্থীদের হাফ-পাস এবং নিরাপদ সড়কের দাবিতে ধারাবাহিক আন্দোলন পরিচলানা করছে ঢাকার বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীরা।

আজ ও সকাল ১১ টা থেকে মালিবাগ, রামপুরা এলাকায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে।

মালিবাগ চৌধুরী পাড়ায় (আবুল হোটেলের সামনে) বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা মিলিতভাবে ‘নাইম-মাঈন স্মরণনামা’ ঘোষণা করে। ৯ দফা দাবি সম্বলিত স্মরণনামা পাঠ করেন ন্যাশনাল আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ-এর রাহিদ আহমেদ এবং সাউথ পয়েন্ট স্কুল এন্ড কলেজের নাফিস শাহরিয়ার।

এসময় নটেরডেম কলেজের রাহাত আলম দীপ্ত উপস্থিত ছিলেন।

১. মাঈনের কাঠামোগত হত্যাকাণ্ডের দায় রাষ্ট্রকে নিতে হবে এবং সংশ্লিষ্ট বাসের চেয়ারম্যান, ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা- কর্মচারীদের বিচারের আওতায় আনতে হবে এবং যথাযথ ক্ষতিপূরণ দিতে হবে।
২. নাইমের কাঠামোগত হত্যাকাণ্ডের দায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনকে নিতে হবে এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা- কর্মচারীদের বিচারের আওতায় আনতে হবে। পরিচ্ছন্নতা কর্মীর ফাঁসির কথা বলে সিটি কর্পোরেশন প্রধান হিসেবে মেয়র দায় এড়াতে পারবেন না।
৩. ফিটনেস বিহীন যানবাহন রাস্তায় পাওয়া গেলে বি আর টি এ কে এর দায় নিতে হবে এবং ফিটনেসবিহীন যানবাহন দ্বারা কোনো হত্যাকান্ড সংঘটিত হলে ঐ যানবাহনের মালিক এবং বিআরটিএ’র সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে৷
৪. প্রাইভেট পরিবহনের বদলে সরকারের আওতায় গণপরিবহন চালু করতে হবে। সকল ড্রাইভার, হেলপারকে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের পরিবর্তে নির্দিষ্ট মাসিক বেতনের আওতায় আনতে হবে।
৫. ড্রাইভারের লাইসেন্স না থাকলে ড্রাইভারকে নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স বাতিল করতে হবে।
৬. সারা ঢাকা শহরকে নগর পরিকল্পনার আওতায় এনে স্বয়ংক্রিয় ট্রাফিক সিগন্যাল এবং যথাযথ জেব্রা ক্রসিং এর ব্যবস্থা করে রাস্তা পারাপার বান্ধব শহর তৈরি করতে হবে।
৭. শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাস নিশ্চিত করতে হবে।
৮. হকারদের পূর্ণ ক্ষতিপূরণ সহ পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করে রাস্তা ও ফুটপাত হকার মুক্ত করতে হবে।
৯. রাস্তাঘাটের উন্নয়নজনিত কোন কাজে দীর্ঘসময় চলাচলে বিঘ্ন তৈরি হলে সড়ক ও পরিবহন মন্ত্রণালয়কে দায় নিতে হবে এবং সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের টেন্ডার বাতিল করতে হবে।

 

Facebook Pagelike Widget