» দৈনিক অন্যদিগন্ত’র সম্পাদক মোহাম্মদ মাসুদ এর জন্মদিন

প্রকাশিত: ০২. ফেব্রুয়ারি. ২০২০ | রবিবার

রাসেল আহমেদ॥ 
ইতিহাসের ধারাবাহিকতায় কিছু মানুষের জন্ম হয়, যারা দেশ ও জাতির সেবায় নিজের জীবনকে উৎসর্গ করে। তেমনি একজন- যিনি তারুণ্যের প্রতীক, সময়ের বলিষ্ঠ ও সাহসী সাংবাদিক সেই ১৯৯৬ সালে দৈনিক খবর এর একজন থানা রিপোর্টার হয়ে কর্মজীবনশুরু করলেও কাজ করেছেন বাংলাবাজার, চিত্রবাংলা, অন্যায়ের প্রতিবাদ, সিঙ্গাপুর থেকে প্রকাশিত প্রবাসী, মনোরমা, ছায়াছন্দ, সুগন্ধা, পূর্ণিমা, ছুটি, অপরাধজগতসহ অনেক পত্রিকায়।

সর্বশেষ দৈনিক আজকের কাগজ এ বর্তমানে তিনি দৈনিক অন্যদিগন্ত, দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ ও দৈনিক কুমিল্লা প্রতিদিন এর সম্পাদক, বাংলাদেশ সংবাদপত্র পরিষদ (বিএসপি) এর প্রচার সম্পাদক, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের ইউনিট চিফ, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের কাউন্সিলর, ঢাকা প্রেস ক্লাবের অর্থ সম্পাদক ও ঢাকা মেট্রোপলিটন ক্রাইম রিপোর্টাস সোসাইটির মহাসচিব, কুমিল্লা সাংবাদিক ফোরাম ঢাকার সদস্য এবং ভারত থেকে সম্প্রচারিত সংবাদভিত্তিক টিভি চ্যানেল ‘আর প্লাস’ এর বাংলাদেশ ব্যুরো চিফ তিনি।

১৯৮২ সালের ২ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লা জেলার বুড়িচং থানার বাকশিমূল গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। বাবা মো. শামসুল হক এবং মা আয়েসা বেগম, ৩ ভাই ও ১ বোনের মধ্যে তিনি সবার বড়। এ ছাড়াও তিনি বিভিন্ন সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সাথে জড়িত।
এই প্রচার বিমুখ সাদামাঠা প্রিয় সাংবাদিককে নিয়ে এফবিতে লিখেছেনে আমাদেও চট্টগ্রাম বিভাগীয় প্রধান সাংবাদিক সাহেদুল ইসলাম সাগর যা পাঠকের জন্য তোলে ধরা হল।

◑◑ শুভ জন্মদিন প্রিয় অগ্রজ….।।।
প্রিয় ভ্রাতা তথা আমি যার অনুজ,আজ সেই অগ্রজের জন্মদিন নামক বিশেষ একটি দিন..এই বিশেষ দিনে উনাকে নিয়ে দু একটি কথা লিখতে মন চাইল,তাই আমি এই অধম দু এক লাইন লিখে ফেললাম…!!!
# আমার দেখা অতি সাদামাটা জীবন যাপনে অভ্যস্থ এই অসম্ভব প্রতিভাধর মানুষটি নিজেকে অন্তরালে রাখতেই কেন জানি ভালবাসেন.উচ্চমাপের এই কলম সৈনিক একজন প্রতিযথা সাংবাদিক হলেও তিনি নিজেকে অতি সাধারণ হিসেবে অন্যদের নিকট প্রকাশ করেন.নিজের খ্যাতি,যশ,প্রতিভাকে কখনোই প্রকাশ করতে পছন্দ করেন না.সাংবাদিকদের বহু সংগঠনের সাথে তার সম্পৃক্ততা রয়েছে. ঢাকা প্রেস ক্লাব, সাংবাদিক ইউনিয়নসহ এমনতর আরো বহু প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন পদে তিনি আসীন.সংবাদমাধ্যম তথা প্রিন্ট মিডিয়ার কয়েকটি পত্রিকার তিনি সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন.বিভিন্ন জার্ণালে তার রয়েছে বেশ কিছু প্রবন্ধ.সমাজ তথা দেশের জন্য অকাতরে নিবেদিত প্রাণ এই প্রিয় মানুষটিকে অনেকটা আলোর অপেরা হিসেবে তুলনা করা চলে.অথচ,তার চাল-চলনে কিংবা আচরণে নেই তার বিন্দুমাত্র লেশ.এই মানুষটির গুণের কথা লিখে শেষ করা অসম্ভব.প্রিয় মানুষটির আজ এই বিশেষ দিনে যে সামান্যটুকু না বললেই নয়,”কিছু মানুষের সময়ের সাথে তাদের দৈহিক বয়স বৃদ্ধি পায় সত্য, কিন্ত তাদের নিজস্ব আলোর সময় যেন স্থির হয়ে থাকে.সেই আলো চির যৌবনা,অনন্ত সময় তা হতে আলো বিচ্ছুরিত হয়েই যায় কেবল.সময়ের সাথে সাথে সেই আলোর ধার আরো বৃদ্ধি পেতে থাকে.সময় সেখানে প্রভাবিত করতে পারে না.এই অদম্য প্রাণপুরুষের সান্নিধ্যে পেয়ে আমি আজ ধন্য, নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করি, তার স্নেহের পরশে আসার পর হতেই আমি কেবল তার গুণে মুগ্ধ হয়েই যাচ্ছি বারংবার, শ্রদ্ধা আর ভালবাসায় আমি অভিভূত হয়েছি কেবল.পরোপকারী, সততা,ন্যায়নিষ্ঠতা ও অসম্ভব বিনয়ী এই ভদ্র মানুষটি সাংবাদিক সমাজের একজন প্রতিযশা ব্যক্তি হওয়া সত্বেও তার নেই কোন অহংবোধ.সত্যিই আমি গর্বিত…!!!
◑ হে প্রিয় অগ্রজ,আপনার এই বিশেষ দিনে স্রষ্টার কাছে প্রার্থনা কেবল,তিনি যেন আপনার অপার এই সম্ভাবনাময় জীবনটাকে ভালোবাসা আর সুখ দিয়ে পরিপূর্ণ করে রাখে.সকল অপূর্ণতাকে পূর্ণতা দান করে.সাফল্যের তরী যেন আপনার কদমে এসে লুটিয়ে পড়ে..শারিরীক ও মানসিক সুস্থতা যেন আপনার অনাগত দিনগুলিকে ভরিয়ে তুলে…
✪✪…….জন্মদিনের নিরন্তর শুভেচ্ছা ও ভালবাসা রইল এবং দোয়া রইল…
…..♥..শুভ জন্মদিন…♥……
◑ প্রিয় অগ্রজথ আপনার এই অনুজ চিরকাল আপনার স্নেহের সান্নিধ্যে থাকার প্রত্যাশী..আশাকরি সেই প্রত্যাশা পূরণ হবে…
আরেক প্রিয় দৈনিক আমাদেও কন্ঠের সাংবাদিক সাংবাদিক আকাশ মনি তার এফবিতে লিখেছেনে সুখের মেঘগুলো,সুখের বৃষ্টি হয়ে
আপনার জীবনে ঝরে পড়ুক
ধুয়ে মুছে যাক অতিতের সব
দুঃখ কষ্ট ব্যথা গ্লানি
পাওয়া না পাওয়ার স্যাতসেতে বেদনা।

  1. আগামী দিনগুলো হোক সুখের
    পদেপদে আসুক সফলতা…
    শুভ জন্মদিন
    সম্পাদক
    দৈনিক অন্যদিগন্ত
    দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ
    দৈনিক কুমিল্লা প্রতিদিন।
    এই মানুষটির শুভজন্মদিনে অনেক প্রিয় বন্ধু মহল আত্বীয় পরিজনরা শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সে জন্য তিনি সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ কওে তিনি বলেন আমি একজন সামান্য মানুষ আমি সবার দোয়া আর ভালবাসার মাঝেই বেচে থাকতে চাই হাজার বছর সবাই যেন আমার জন্য দোয়া করে ভুলক্রুটি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখে সে প্রত্যাশা সবার প্রতি।