» ছয় দফা দাবী আদায়ের লক্ষে বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী কল্যাণ ফেডারেশনের সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত: ২৫. ফেব্রুয়ারি. ২০২০ | মঙ্গলবার

 

রাসেল আহমেদ,  জাতির  সংবাদ  টোয়েন্টিফোর  ডটকম ।। প্রজাতন্ত্রের ১১-২০ তম গ্রেডভুক্ত কর্মচারীদের চলমান বৈষম্যের অবসান, বেতন  ও ভাতাবৃদ্ধি, টাইমস্কেল, সিলেকশন গ্রেড পূর্ণবহাল সহ ৬ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে মঙ্গলবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন বাংলাদেশ সরকারি কর্মচারী কল্যাণ ফেডারেশন।

 

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আক্তার হোসেন এবং সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন ফেডারেশনের সভাপতি মোঃ হেদায়েত হোসেন।

 

লিখিত বক্তব্যে সচিবালয়ের সাথে সচিবালয়ের বাহিরে কর্মরত  ১১থেকে ২০ তম গ্রেডের কর্মচারীদের সকল বৈষম্য দূরীকরণসহ ২০টি গ্রেটেস্ট   পরিবর্তে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কর্তৃক প্রদত্ত  ১৯৭৩ সালের জাতীয় বেতন স্কেলের দশটি গ্রেডে বেতন কাঠামো নির্ধারণ, অবসরের বয়সসীমা ২০ বছর নির্ধারণ, আনুতোষিকের হার ১ টাকায় ৩০০ টাকা নির্ধারণ, বার্ষিক বেতন বৃদ্ধির হার ১০% এ উন্নীতকরণ, চাকরিরত ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীদের বিনা ব্যায় চিকিৎসা সুবিধা প্রদান, যাতায়াত ভাতা, টিফিন ভাতা, যৌক্তিকভাবে বৃদ্ধি করা, স্বল্পমূল্যে রেশন অথবা রেশন ভাতা প্রবর্তন করা, পবিত্র ঈদুল ফিতরের উৎসব ভাতা এক মাসের পরিবর্তে দুই মাসের সমপরিমাণ অর্থ প্রদান, বিনা সুদে ২৫ থেকে ৩০ লক্ষ টাকা গৃহ ঋণ সুবিধা প্রদান, গ্যাস বিদ্যুৎ পানি সামাজিক ও অন্যান্য ব্যয় বাবদ মাসে ১০ হাজার টাকা প্রদান, রাজউকের প্লট বরাদ্দের ক্ষেত্রে কর্মচারীদের সংখ্যার অানুপাতিকহারে কোটা সংরক্ষণ করা সহ রাজস্ব খাতে স্থানান্তরিত কর্মচারীদের চাকরি গণনা সহ টাইম স্কেল সিলেকশন গ্রেড পূর্ণবহাল, আউটসোর্সিং প্রথা বাতিল, ১৭তম গ্রেডের কর্মচারীদের চতুর্থ শ্রেণীর পরিবর্তে তৃতীয় শ্রেণী হিসেবে গণ্য করা এবং চাকরিরত ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীদের জন্য রাজধানীতে কর্মচারী কমপ্লেক্স নির্মাণের দাবি করা হয়।

 

 

এ সকল দাবি বাস্তবায়নে আগামী ১৩ মার্চ   শুক্রবার সকাল ১০ ঘটিকায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে কর্মচারী সমাবেশের ঘোষণা দেয়া হয় সংবাদ সম্মেলন থেকে।