» চীনের কোয়ানঝো শহরে হোটেল ধসে প্রায় ৭০ জন আটকা

প্রকাশিত: ০৭. মার্চ. ২০২০ | শনিবার

জাতির সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম নিউজ ডেস্ক  ।।     চীনের দক্ষিণাঞ্চলীয় ফুজিয়ান প্রদেশের কোয়ানঝো শহরে একটি হোটেল ধসে প্রায় ৭০ জন আটকা পড়েছেন। চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম জানায়, সিনজিয়া নামের ওই হোটেলটি করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের কোয়ারেনটাইন করে রাখার জন্য ব্যবহৃত হচ্ছিল।

বিবিসির খবরে বলা হয়, শনিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে পাঁচতলা এই হোটেলটি ধসে পড়ে। তবে হতাহতের কোনো খবর মেলেনি। হোটেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এরই মধ্যে প্রায় ৩৫ জনকে ধ্বংসস্তূপ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। কী কারণে হোটেলটি ধসে পড়েছে, তা এখনো জানা যায়নি। ২০১৮ সালে চালু হওয়া হোটেলটিতে ৮০টি অতিথি কক্ষ রয়েছে।

একজন নারী বেইজিং নিউজ ওয়েবসাইটকে বলেন, তাঁর বোনসহ কয়েক স্বজন এখানে কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। তিনি বলেন, ‘আমি তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছি না। তারা ফোন ধরছে না। আমিও অন্য একটি হোটেলে কোয়ারেন্টাইনে আছি। বুঝতে পারছি না কী করব। তারা ভালো ছিল। প্রতিদিনই তাদের তাপমাত্রা মাপা হচ্ছিল। পরীক্ষায় দেখা গেছে তাদের সব স্বাভাবিক ছিল।’

উদ্ধারকারীদের সহায়তায় ধ্বংসস্তূপ থেকে বেরিয়ে আসছেন একজন।
উদ্ধারকারীদের সহায়তায় ধ্বংসস্তূপ থেকে বেরিয়ে আসছেন একজন।
গতকাল শুক্রবার ফুজিয়ান প্রদেশে ২৯৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির ঘনিষ্ঠ সংস্পর্শে থাকার কারণে ইতিমধ্যে ১০ হাজার ৮১৯ জনকে কোয়ারেনটাইন রাখা হয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে বিশ্ব জুড়ে ১ লাখ ১০ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এরই মধ্যে এই ভাইরাসের সংক্রমণে তিন হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছেন।