» গোবিন্দগঞ্জে কর্মস্থলে যোগদান করলেন করোনা যুদ্ধে জয়ী সার্জেন্ট মামুন

প্রকাশিত: ০৯. মে. ২০২০ | শনিবার

সঞ্জয় সাহা, গাইবান্ধা প্রতিনিধি:
গাইবান্ধা জেলা ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট ফয়সাল মামুন গত কয়েক মাস হতে গোবিন্দগঞ্জে নিয়মিত ভাবে ট্রাফিক সার্জেন্ট হিসাবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। গত এপ্রিল মাসের প্রথম সপ্তাহে যখন নারায়ণগঞ্জ,গাজীপুর ও ঢাকা এলাকায় করোনা হানা দেয় এবং ঐ এলাকার গার্মেন্টস কর্মিরা সরকারি বাঁধা- নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে বাস-ট্রাকে করে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে চুরি করে ফিরছিলো। তখন গোবিন্দগঞ্জের বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে বাস-ট্রাক চেক দিতে গিয়ে সার্জেট মামুনের শরীরে সম্ভাবত গত অনুঃ ১২ এপ্রিল থেকে করোনা ভাইরাস বাসা বাধে। সার্জেন্ট মামুন করোনা উপসর্গ উপেক্ষা করে সরকারি দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে বেশি অসুস্থ হয়ে পরলে সে গত ১৮ এপ্রিল ব্যক্তিগত ভাবে হোম কোয়ারান্টাইন চলে যান। এবং গত ১৯ এপ্রিল অফিসার ইনচার্জ একেএম মেহেদী হাসানের পরামর্শে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হতে সার্জেন্ট মামুনের নমুনা সংগ্রহ করে রংপুর পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়।পরীক্ষা শেষে গত ২৪ এপ্রিল সার্জেন্ট মামুনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসলে গাইবান্ধা জেলা পুলিশের মধ্যে অনুশোচনা বিরাজ করে। এর প্রেক্ষিতে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মজিদুল ইসলাম মহোদয়ের পরামর্শে মামুন কে আইসোলেশনে রেখে নিয়মিত চিকিৎসা দেয়া হয়। গত ২৯ এপ্রিল ২য় বার মামুনের স্যাম্পল সংগ্রহ করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স তা রংপুর পিসিআর ল্যাবে পাঠিয়ে দেন। কিন্তু ঐ সময় সারাদেশে ৫ জন পুলিশ সদস্য করোনায় মারা গেলে এবং সার্জেন্ট মামুন ২৯ এপ্রিল থেকে বেশি অসুস্থ হয়ে পরলে ও শ্বাস- প্রশ্বাসের সমস্যা দেখা দিলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পক্ষ হতে গত ১মে জরুরি ভিত্তিতে মামুন কে এ্যাম্বুলেন্স যোগে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল রংপুরে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসার এক পর্যায়ে গত ৩মে সার্জেন্ট মামুনের ২য় বার নেয়া স্যাম্পলের রিপোর্ট নেগেটিভ আসলে গাইবান্ধা জেলা পুলিশের মধ্যে আনন্দের বন্যা বয়ে যায়। এবং মামুন মানসিক ও শারিরীক ভাবে সুস্থ হতে থাকে। সেই সাথে আরো নিশ্চিত হবার জন্য গত ৪মে পুনরায় সার্জেন্ট মামুনের ৩য় বার স্যাম্পল নেয়া হলে গত ৭মে মামুনের করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট আসে। এবং সার্জেন্ট মামুন চুড়ান্ত ভাবে করোনা জয় করে। অদ্য সার্জেন্ট মামুন কে রংপুরস্থ হাসপাতাল থেকে বিদায় দেয়া হলে করোনা জয়ী মামুন বীরের বেশে তার পুরাতন কর্মস্থল যোগদান করতে দুপুর ২টা গোবিন্দগঞ্জ থানায় আসলে গাইবান্ধার পুলিশ সুপার মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম মহোদয়ের পক্ষে জেলা ট্রাফিক পুলিশের টিআই নূর হোসেন সিদ্দিক, গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ এ,কে,এম মেহেদী হাসান,ওসি তদন্ত আফজাল হোসেন,টিআই রুহুল আমিন,গোবিন্দগঞ্জ ট্রাফিক পুলিশের সদস্য বৃন্দ ও থানার সকল অফিসার বৃন্দ ফুলেল শুভেচ্ছার মধ্যে দিয়ে করোনা জয়ী সার্জেন্ট মামুনকে স্বাগত জানান।এসময় গোবিন্দগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক জাহিদুর রহমান প্রধান টুকু, গোবিন্দগঞ্জ সাংবাদিক এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মাহমুদ খান, সাধারন সম্পাদক উজ্জল হক প্রধান সহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।