» গাইবান্ধায় বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য দক্ষতা ও সচেতনতনা শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: ২৫. জানুয়ারি. ২০২০ | শনিবার

সঞ্জয় সাহা, গাইবান্ধা প্রতিনিধি: জেনে, বুঝে বিদেশ যাই- অর্থ সম্মান দুটোই পাই” প্রতিপাদ্য বিষয়কে লক্ষ্য রেখে বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য দক্ষতা ও সচেতনতনা শীর্ষক সেমিনার শনিবার সকালে জেলা প্রশাসন এর সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসন গাইবান্ধার অায়োজনে ও প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এর সহযোগীতায় সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ এর হুইপ ও গাইবান্ধা সদর-২ আসনের সংসদ সদস্য মাহাবুব আরা বেগম গিণি এমপি। সভাপতিত্ব করেন গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক মো: অাব্দুল মতিন। প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এর উপ- সচিব মো: অামিনুর রহমান বৈদেশিক কর্মসংস্থান বিষয়ক প্রবন্ধ উপস্থাপনা তুলে ধরে বলেন- ২০০১ সালে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠিত। গাইবান্ধা জেলায় ২০১৮ সালে বৈদেশিক কর্মসংস্থান ৪ হাজার ৭ শ ৮৫ জন ও ২০১৯ সালে বৈদেশিক কর্মসংস্থান ২ হাজার ৭শ ৯ জন। দক্ষ হয়ে বিদেশে যেতে হবে। বিদেশে যাওয়ার জন্য করণীয় বিষয় গুলা হলো: নিজ জেলার টিটিসি/ ওটিসি থেকে বিভিন্ন ট্রেডে প্রশিক্ষন গ্রহন করা। হাতে কলমে শিক্ষার মাধ্যমে অভিজ্ঞতা অর্জন করা। অনান্য কারিগরি প্রশিক্ষন কেন্দ্র থেকে বৃত্তিমূলক শিক্ষা গ্রহন। বিদেশ গমনেচ্ছু কর্মীদের ডাটাবেইজে অন্তভুক্ত হতে হবে। দালাল/ মধ্যস্বত্বভোগীদের পরিবর্তে সরাসরি এজেন্টের সাথে যোগাযোগ করা। সরকার নির্ধারিত অভিবাসন ব্যায়ের অতিরিক্ত অর্থ প্রদান না করা। যে দেশে যাচ্ছেন ঐ দেশের ভাষা, সংস্কৃতি সম্পর্কে জানা। নিজের ও পরিবারের নামে আলাদা ব্যাংক একাউন্ট খোলা। দক্ষতা উন্নয়নে জেলায় অবস্থিত ৬৪ টি কারিগরি প্রশিক্ষন কেন্দ্রে বিভিন্ন বিষয়ে বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষনের সুযোগ। বিনামূল্যে বা স্বল্প ব্যায়ে প্রশিক্ষনের সুযোগে অার্থিক প্রনোদনা। অাবাসিক সুবিধা। দেশ ও বিদেশের চাহিদা অনুযায়ী বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষন ও অাত্বকর্মসংস্থানের সুযোগ। সরকার কর্তৃক ১৬ টি দেশের নির্ধারিত অভিভাসন ব্যায় হচ্ছে: অভিবাসন ব্যায়/ কারখানা শ্রমিক: ১ লক্ষ ৬০ হাজার এবং কৃষি শ্রমিক ১ লক্ষ ৪০ হাজার। জর্ডানে অভিবাসন ব্যায় ১ লক্ষ ২ হাজার ৭ শ ৮৩ জন। লিবিয়ায়: ১ লক্ষ ৪৫ হাজার ৭ শ ৮০, মিশরে: ১ লক্ষ ২০ হাজার ৩শ ৮০, বারবাইন: ৯৭ হাজার ৭শ ৮০। রাশিয়া: ১ লক্ষ ৬৬ হাজার ৬ শ ৪০, সংযুক্ত আরব আমিরাত: ১ লক্ষ ৭ হাজার ৭শ ৮০। মালদ্বিপ: ১ লক্ষ ১৫ হাজার ৭ শ ৮০। কুয়েত: ১ লক্ষ ৬ হাজার ৭ শ ৮০। রুনাই দারুসসালাম: ১ লক্ষ ২০ হাজার ৭ শ ৮০। সালতানাত আর: ১ লক্ষ ৭ ৮০। লেবানন: ১ লক্ষ ১৭ হাজার ৭ শ ৮০। ইরাক: ১ লক্ষ ২৯ হাজার ৫শ ৪০। সৌদিআরব: ২ লক্ষ ৬২ হাজার ২ শ ৭০। কাতার: ১ লক্ষ ৭ ৮০। সিংগারপুর: ২ লক্ষ ২৬ হাজার ২ শ ৭০। নিরাপদ অভিবাসন, মনে রাখা প্রয়োজনে প্রবাসবন্ধু কল সেন্টারে তথ্য জানার সুযোগে: ০১৭৮৪৩৩৩৩৩৩ কল করুন। ফ্রি ভিসা বলতে কোন ভিসা নেই। দেশ অনুযায়ী অভিবাসন ব্যায় নির্ধারিত। বৈদেশিক কর্মসংস্থান ও অভিবাসী আইন, ২০১৩ মোবাইল কোর্ট অাইন, ২০০৯ এর তফসিলভুক্ত। ব্যাংকের মাধ্যমে রেমিটেন্স প্রেরণ সহজ, নিরাপদ, সময় সাশ্রয়ী ও ঝুকিমুক্ত। অনলাইনের মাধ্যমে বিদেশে বৈধভাবে বসবাসরত অনাবাসী ও অনিবন্ধিত বাংলাদেশীদের ডাটাবেজে নাম অন্তভূক্তির সুযোগ। অনলাইনে অভিযোগ প্রেরণের সুযোগ। দেশব্যাপী ৬৪ টি টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার টিটিসি ও ৬ টি ইনষ্টিটিউট অফ মেরিন টেকনোলজি অাইসিটি চালু অাছে এবং প্রতি উপজেলায় টিটিসি প্রতিযোগী অাছে।