» কক্সবাজারের সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নে রোহিঙ্গাদের বাদ দিয়ে ভোটার তালিকা সংশোধনে হাইকোর্ট আদেশ

প্রকাশিত: ০২. ডিসেম্বর. ২০২১ | বৃহস্পতিবার

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

সুপ্রিমকোর্ট প্রতিবেদক: কক্সবাজার জেলার চকরিয়া উপজেলার সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নে রোহিঙ্গাদের বাদ দিয়ে ভোটার তালিকা সংশোধনে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এ সংক্রান্ত একটি রিট পিটিশন নিস্পত্তি করে বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামান সমন্বয়ে গঠিত একটি হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

রিটের পক্ষে আইনজীবী সালমা সুলতানা বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের আদালতের আদেশের বিষয়টি জানান। তিনি বলেন, সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিমের সহায়তায় রোহিঙ্গাদের স্থানীয় ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ভোটার তালিকায় রোহিঙ্গাদের সুনির্দিষ্টভাবে চিন্হিত করে স্থানীয় বাসিন্দা মোঃ রুবেল বিষয়টি আমলে নিয়ে ওই ভোটার তালিকা সংশোধনে নির্বাচন কমিশন (ইসি) ও সংশ্লিষ্টদের বরাবর ২৪ নভেম্বর আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতেও ইসি কোনো পদক্ষেপ না নেয়ায় বিষয়টি নিয়ে প্রয়োজনীয় নির্দেশনার আর্জি পেশ করে সুরাজপুর-মানিকপুর এলাকাবাসীর পক্ষে মোঃ রুবেল ২৮ নভেম্বর হাইকোর্ট রিট পিটিশন দায়ের করেন। রিটে ইসি, স্থানীয় সরকার সচিব, সুরাজপুর-মানিকপুর ইউপি চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিমসহ ৯ জনকে বিবাদী (রেসপনডেন্ট) করা হয়।

এডভোকেট সালমা সুলতানা জানান,
আদালতের আদেশ পাওয়ার ১৫ দিনের মধ্যে সুরাজপুর-মানিকপুরের ভোটার তালিকা থেকে রোহিঙ্গাদের বাদ দিয়ে ভোটার তালিকা সংশোধনে হাইকোর্ট আদেশ দিয়েছেন। আদেশে আদালত বলেন, আইন অনুযায়ী কোনরূপ ব্যর্থতা ছাড়া ইসিকে বিষয়টি নিস্পত্তি করতে হবে।

এডভোকেট সালমা সুলতানা বলেন, ‘আদালতে শুনানিকালে বলেছি, স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন, ২০০৯ এর ধারা ১৯ অনুযায়ী ভোটার তালিকায় তিনিই অন্তর্ভুক্ত হবেন যিনি বাংলাদেশের নাগরিক।’ এ আইনজীবী আরো বলেন, মিয়ানমারের বাসিন্দা রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশ সরকার এদেশে আশ্রয় দিয়েছেন। কোন পরিস্থিতিতে এবং কি কারণে তা সবারই জানা রয়েছে। কিন্তু স্থানীয় একটি মহল নিজ স্বার্থে ও বেআইনি এবং অবৈধ উপায়ে রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে এদেশের নাগরিক বানানোর কাজে লিপ্ত রয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে রিটটি করা হয়।

Facebook Pagelike Widget