» এই প্রথম গোবিন্দগঞ্জে করোনায় রিয়াদবাবু নামে কিশোরের মৃত্যু

প্রকাশিত: ২৮. এপ্রিল. ২০২০ | মঙ্গলবার

সঞ্জয় সাহা,গাইবান্ধা প্রতিনিধি: গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ থানার শাখাহার ইউপির আলিগ্রামের কিশোর রিয়াদবাবু(১৫) প্রায় দু’ বছর আগে মটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মাথায় আঘাত প্রাপ্ত হয়। এর ফলে সে আংশিক স্মৃতি শক্তি হারিয়ে ফেলে এবং মাঝেমধ্যে সে অসুস্থ হয়ে পরে। যার প্রেক্ষিতে প্রায় তার চিকিৎসা করাতে হয়।

উক্ত কিশোরের বাবা-মা উভয়ই সাভার পল্লী বিদ্যুৎ এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে ১০ বছরের এক মেয়ে সহ বসবাস করতো। আর মা গার্মেন্টসে এবং বাবা ঐ এলাকায় কৃষি কাজ করতো। সারাদেশে করোনা ছড়িয়ে পরলে রিয়াদের বাবা-মা ও মেয়ে সহ গত অনুমান ২০ এপ্রিল বাড়ি আসলে তারা ছেলে রিয়াদের সাথে মেলামেশা করে। এবং সম্ভবত বাবা-মায়ের শরীরের বহন করা করোনা ভাইরাসে অসুস্থ ছেলে রিয়াদের শরীরে ছড়িয়ে পরে। এর প্রেক্ষিতে রিয়াদ গত ২৪ এপ্রিল অসুস্থ হয়ে পরলে পরিবারের লোকজন আগের দুর্ঘটনাজনিত অসুস্থ মনে করে গত ২৫ এপ্রিল বাবা ও চাচা এ্যম্বুলেন্স করে রিয়াদ কে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সকাল ১১ টায় চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে দুর্ঘটনার রুগি হিসাবে।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় ডাক্তারের সন্দেহ হলে তারা রিয়াদের স্যাম্পল সংগ্রহ করার আগেই রিয়াদ সকাল ১১টা ৫০মিনিটে মারা যায়। তারপরও তার স্যাম্পল সংগ্রহ শেষে এবং বিভিন্ন প্রক্রিয়ান্তে বিকেলে মৃতদেহ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করলে পরিবারের লোকজন মৃত রিয়াদ কে নিজ বাড়িতে এনে দাফন করে।

এরপর গত ২৭ এপ্রিল রাত অনুঃ ৯টা ৪০ মিনিটে উক্ত রিয়াদের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসলে এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়ে যায়।

তাৎক্ষণিকভাবে গাইবান্ধার পুলিশ সুপার, সিভিল সার্জন ও গোবিন্দগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইউএইচএন্ডএফপিও ও গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মিলে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিয়ে ঐ পরিবারের সাথে যোগাযোগ করে রিয়াদের সংস্পর্শে আসা প্রায় ৫০ জনকে সনাক্ত করে হোম কোয়ারান্টাইন করেন।