» আল্লামা আহমদ শফী এখন অনেকটা শঙ্কামুক্ত

প্রকাশিত: ১৯. এপ্রিল. ২০২০ | রবিবার

জাতির সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম।।    ঢাকার আজগর আলী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির আল্লামা শাহ্ আহমদ শফীর শারীরিক অবস্থার অনেকটা উন্নতি হয়েছে। তিনি এখন অনেকটা শঙ্কামুক্ত।

আজ রোববার বিকেল ৪টার দিকে আল্লামা আহমদ শফীর ছোট ছেলে ও হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের প্রচার সম্পাদক মাওলানা আনাস মাদানী আমাদের সময়কে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আনাস মাদানী বলেন, ‘হুজুরকে (আল্লামা শফী) নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, বর্তমানে উনার শারীরিক অবস্থা উন্নতির দিকে। মূলত ফুসফুসের সংক্রমণজনিত রোগের কারণে উনাকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে।’

হেফাজত আমিরের শারীরিক সুস্থতায় জন্য ছাত্র, খালিফা, ভক্ত, মুরিদান ও দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়ে তার একান্ত ব্যক্তিগত সহকারী মাওলানা শফিউল আলম বলেন, ‘হুজুরের আইসিইউ সাপোর্ট প্রয়োজন না হলেও সার্ক্ষণিক নিরাপত্ততার জন্য চিকিৎসদের পরামর্শে রাখা হয়েছে। তিনি আগের চাইতে অনেকটা সুস্থ ও স্বাভাবিক রয়েছেন। ’

গত ১৬ এপ্রিল উন্নত চিকিৎসার জন্য এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে চট্টগ্রাম থেকে তাকে ঢাকার গেন্ডারিয়ার আজগর আলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অধ্যাপক ডা. মতিউর ইসলানের তত্ত্বাবধানে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের মেডিকেল বোর্ডের মাধ্যমে তার চিকিৎসা সেবা চলছে বলে জানা গেছে।

এর আগে গত ১১ এপ্রিল বিকেলে বমি, মাথাব্যথা, শ্বাসকষ্ট এবং বার্ধক্যজনিত শারীরিক দুর্বলতাসহ নানা সমস্যা নিয়ে আল্লামা আহমদ শফী চট্টগ্রামের প্রবর্তক মোড়ের বেসরকারি হাসপাতাল সিএসসিআরে ভর্তি হন।

এদিকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আল্লামা আহমদ শফীর মৃত্যুর গুজব ছড়াচ্ছে একটি মহল। এসব গুজব তথা মৃত্যুর বিষয়টি সঠিক নয়। এ ছাড়া গুজব না ছড়াতে এবং গুজবে কান না দেওয়ারও জন্য মাওলানা আনাস মাদানী সবাইকে আহ্বান জানান।

প্রসঙ্গত, ১০৩ বছর বয়সী আল্লামা শফী দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত দুর্বলতার পাশাপাশি ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, শ্বাসকষ্ট এবং হজমজনিত সমস্যায় ভুগছেন। বার্ধক্যের কারণে এসব রোগ দিনদিন অনিয়ন্ত্রিত হয়ে পড়ে। ফলে তাকে ঘন ঘন হাসপাতালে ভর্তিও হতে হচ্ছে। চলতি বছরে এর আগেও কয়েক দফা অসুস্থ হয়ে তিনি বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন।