এই মাত্র পাওয়া:

» আফগানিস্তানে টিভি নাটকে নারীরা নিষিদ্ধ

প্রকাশিত: ২২. নভেম্বর. ২০২১ | সোমবার

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

জাতির সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম।। আফগানিস্তানের টেলিভিশন নাটকে নারীদের একেবারে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে নতুন তালেবান সরকার। তবে নারীরা সাংবাদিক ও উপস্থাপক হিসেবে থাকতে পারবে। সেক্ষেত্রে তাদের পর্দায় হিজাব পরে উপস্থিত হতে বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে সাংবাদিকেরা বলছেন, তালেবানদের নতুন কিছুটা নিয়ম অস্পষ্ট। এর ব্যাখ্যার প্রয়োজন রয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

আজ সোমবার ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসি জানায়, গণমাধ্যমে নারীদের জন্য নতুন ৮টি আইন করেছে তালেবান সরকার। নতুন আইনে টেলিভিশন নাটকে নারীদের দেখানো যাবে না। সাংবাদিক ও উপস্থাপকদের হিজাব ব্যবহার করতে বলা হয়েছে। তবে কোন ধরনের হিজাব পরবে সে ব্যাপারে কিছু বলা হয়নি।

আফগানিস্তানের টেলিভশন চ্যানেলগুলোকে যে আটটি নিয়মে অনুষ্ঠান প্রচার করতে বলা হয়েছে- আফগান মূল্যবোধের পরিপন্থী চলচ্চিত্র নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে, কমেডি বা বিনোদনমূলক শোগুলোতে ধর্মকে অবজ্ঞা করা যাবে না কিংবা আফগানদের আক্রমণাত্মক বিবেচিত হয় এমন কিছু করা যাবে না। এছাড়ও ভিডিও ফুটেজে পুরুষদের অনাবৃত শরীর দেখানো যাবে না।

আফগান টেলিভিশন চ্যানেলগুলো বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বিদেশি নাটক প্রচার করে, সেগুলোর কেন্দ্রীয় চরিত্রে থাকে নারী। আফগান সাংবাদিকদের প্রতিনিধিত্বকারী একটি সংগঠনের সদস্য হুজ্জাতুল্লাহ মুজাদ্দেদি বলেছেন, নতুন বিধিনিষেধের ঘোষণা অপ্রত্যাশিত।

তিনি আরও বলেন, নতুন নিয়মের কয়েকটি বাস্তবিক নয় আর এগুলো বাস্তবায়ন করা হলে সম্প্রচার বন্ধ করে দিতে হবে।

উল্লেখ্য, এ বছরের আগস্টে তালেবানরা আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখলের পর অনেকেরই আশঙ্কা ছিল তারা পর্যায়ক্রমে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করবে। যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্র বাহিনী আফগানিস্তান ত্যাগের পরই কট্টর ইসলামপন্থী গ্রুপটি দেশটির নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়। এরপরই মেয়ে শিশু ও নারী শিক্ষার্থীদের স্কুলে না যাওয়ার নির্দেশনা দেয়। এর আগে ১৯৯০ দশকেও গ্রুপটির সর্বশেষ শাসনের সময়ও নারীদের শিক্ষা ও কর্মক্ষেত্রে প্রবেশের কোনো সুযোগ ছিলো না।

Facebook Pagelike Widget