এই মাত্র পাওয়া:

» আইন, ন্যায়বিচার, গনতন্ত ও মানবাধিকারের বন্দি সময় : ড. এম এ হক

প্রকাশিত: ১৯. জুলাই. ২০২১ | সোমবার

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

জাতির সংবাদ টোয়েন্টিফোর ডটকম।। 
মানুষ -সমাজ -রাষ্ট্র একে অপরের পরিপূরক। এই অন্তর্নিহিত বাস্তবতাকে সফল করতে হলে ন্যায় বিচার ও মানবাধিকার বাস্তবায়নের পথকে সুগম করার বিকল্প নেই। আইন, শিক্ষা ও গনতন্ত্র চর্চাই কেবল পারে মানবাধিকার বাস্তবায়নের পথকে সুগম ও ন্যায় বিচারের পথকে সুদৃঢ় করতে ।


রাষ্ট্র ও সরকার ব্যবস্থা অবশ্যই দলমত, ধনী গরিব, ধর্ম, বর্ণ, শ্রেনী, পেশা নির্বিশেষে সকলের জন্য কল্যাণকর ও নিরাপদ হতে হবে। কিন্তু আমরা বাংলাদেশে কি ভয়ানক পরিস্থিতি দেখছি- আইনজীবী নির্যাতন-গ্রেফতার-হামলা-মামলা, সাংবাদিক নির্যাতন ও গ্রেফতার, মানবাধিকার কর্মী নির্যাতন ও হয়রানি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিশু ছেলে মেয়েদের উপর যৌন নির্যাতন, ধর্ষণ ও হত্যা, ভূমি দস্যুদের দৌরাত্ম, আমাদের দুর্নীতির উচ্চতা, শিক্ষা ব্যবস্থার ভংগুর দশা, রাজনৈতিক দেউলিয়াপনা, অর্থনৈতিক কেলেংকারি সব মিলিয়ে এক অনিশ্চিত গন্তব্যের দারপ্রান্তে আমার সোনার বাংলা। বিশেষ করে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার আশরাফুল ইসলামের উপর হামলা ও হয়রানি, এডভোকেট ইব্রাহিম এর উপর নির্যাতন ও গ্রেফতার, এডভোকেট হুমায়ূন এর হামলা ও নির্যাতন, সাতক্ষীরা আইনজীবী সমিতির সভাপতি কে গ্রেফতার ও নির্যাতন, এডভোকেট গোলাম রাব্বনিকে গ্রেফতার ও নির্যাতন, চট্টগ্রাম আইনজীবী সমিতির মহিলা আইনজীবীর উপর হামলা, সিলেটের আইনজীবীর উপর হামলা, ময়মনসিংহ আইনজীবী কে জরিমানা ও হয়রানি, বরিশালে সিনিয়র আইনজীবীকে আটকে রাখা, আমার নিজের উপর হামলা ও হয়রানি, সিনিয়র সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম এর উপর নির্যাতন ও গ্রেফতার, সিনিয়র মহিলা চিকিৎসককে হয়রানি, শ্রমিকদের উপর নির্যাতন, শিশু ধর্ষণ ও হত্যা, গুম , অপহরণ এবং দুর্নীতির রাজ্যে- আইন, ন্যায় বিচার, গনতন্ত্র ও মানবাধিকার আজ রাষ্ট্রীয় বন্দী ।

তবে অবশ্যই আমি আশাবাদী যে এই অন্তরিন অবস্থা থেকে রক্ষা করতে অধিকার সচেতন ও প্রশিক্ষিত নতুন প্রজন্ম এগিয়ে আসবে, আসতে দিতে হবে।

একজন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার কর্মী ও মানবাধিকার আইনজীবী হিসেবে আমি চাই- এসব অন্যায়, অত্যাচার, অপহরণ, গুম, হত্যা, হুমকি, হয়রানি, ঘুষ, দূর্নীতি , ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতন বন্ধে কার্যকরী পদক্ষেপ নিয়ে সত্যিকারের শান্তিময় ও উন্নত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে “আইন-ন্যায় বিচার-গনতন্ত্র ও মানবাধিকারের” এই বন্দিদশার অবসান অত্যাবশ্য

Facebook Pagelike Widget